দেখুন ভিডিও- তৃষ্ণার্ত হনুমানকে পরম স্নেহে জল খাইয়ে দিচ্ছে দুঃসাহসী এই মহিলা, মমতাময়ী নারীকে স্যালুট জানালো নেটিজেনরা

কুকুর মানুষের সবচেয়ে বিশ্বাসী বন্ধু। ঘরে কুকুর বিড়ালকে পোষ্য হিসেবে প্রায় দেখা যায়। কিন্তু কখনো কি হনুমানের সাথে মানুষের বন্ধুত্ব হতে পারে? হনুমান যাকে দেখলেই কিনা কামড়ের ভয়ে মানুষ দূরে দূরে থাকে তার সঙ্গে সখ‍্যতা কি গড়ে উঠতে পারে!! অবশ্যই পারে ভালোবাসা দিয়ে সবকিছু জয় করা সম্ভব। তবে এর জন্য প্রাণীদেরকে উদার হৃদয় দিয়ে কেবল ভালবাসতে হবে।

নেট দুনিয়ায় এমন কিছু ভিডিও সামনে আসে যা মনের আনন্দে সঞ্চার ঘটায়। যা দেখে নিজের অজান্তেই হেসে ওঠে নেট নাগরিকরা। মানুষের সাথে পশুর সম্পর্কও যে কতটা মধুর হতে পারে এবার এই কথায় চাক্ষুস দেখার সুযোগ মিললো।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যা দেখে রীতিমত আবেগমন্ডিত হয়ে পড়েছেন নেটিজেনরা। মায়ের প্রতি সন্তানের ভালোবাসা কতটা তা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। নারীরা মাতৃত্বের একটি রূপ। আর এই মাতৃত্ব কেবল মনুষ্য সন্তানে সীমাবদ্ধ থাকেনা। প্রকৃতির যেকোনো সন্তান সে যদি অন‍্য প্রানীও হয় তার কাছেও সেই মাতৃত্ব প্রকাশ পায়‌।

ভাইরাল হওয়ায় এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একটি হনুমানের খুবই জল তেষ্টা পেয়েছে কিন্তু সে কিছুতেই স্টেশনে থাকা জলের কল খুলতে পারছে না। আর সেই সময়ই হনুমানটিকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসে এক মহিলা। সে জলের জলের কল টি খুলে দেয়‌। কেবল এইটুকুই নয় হনুমানটিকে জল খাইয়ে দেয়। মনের আনন্দে প্রাণ ভোরে নিজের তৃষ্ণা মেটাই হনুমানটি। আর কৃতজ্ঞতা স্বীকারও করে নেয় মহিলার কাছে‌।

মহিলার গায়ে হাত দিয়ে নিজস্ব ভঙ্গিতে উপকারের জন্য ধন্যবাদ জানাই অবলা প্রাণী। যেখানে মানুষ মানুষের উপকার ভুলে যায় সেখানে এক ছোট্ট প্রাণী নিজের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে। এই ভিডিও এখন ভাইরাল।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

Check Also

ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যা: বড় ভাইয়ের ফাঁসি, ছোট ভাইয়ের যাবজ্জীবন

ফরিদপুরে এক নারীকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যার দায়ে শাহাবুদ্দিন খান নামে এক ব্যক্তিকে ফাঁসি এবং …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *