নিজের বাচ্চাদের বাঁচাতে বিশাল সাপের সঙ্গে নির্ভয়ে লড়াই করছে মা মুরগি, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

বর্তমান এই আধুনিক যুগে সবার হাতেহাতে বিনোদন বলতে আমাদের মাথায় একটাই আধুনিক প্ল্যাটফর্মের কথা মনে পড়ে সেটি হল সোশ্যাল মিডিয়া।

হ্যা এই সোশ্যাল মিডিয়াই এখন আমাদের বিনোদন খেলাধুলা, গানবাজনা, সিনেমা, খবরাখবর প্রভৃতি আরও অনেক কিছু উপভোগ করার বিপুল ব্যাবহৃত,

এবং সহজ মাধ্যম হয়ে উঠেছে। ছোটো থেকে বড়ো প্রায় সবার হাতেই এখন এই মাধ্যমটি পৌঁছে গেছে। আধুনিক সমাজের বহু তরুণতরুণীর বহু প্রতিভা,

খেলাধুলা এই মাধ্যমের মাধ্যমে সবার হাতেহাতে পৌঁছে গেছে এবং ফুটে উঠেছে। আধুনিক সমাজে প্রায় সবাই বিভিন্ন তথ্য, জ্ঞান, শিক্ষা,

প্রযুক্তি গ্রহণ করতে এই মাধ্যমের উপর বিপুল ভাবে সক্রিয় বলা যেতে পারে। বর্তমানে আধুনিকতার শিখরে এসে সব থেকে দ্রুত সাফল্য পাবার চাবিকাঠি হল এই সোশ্যাল মিডিয়া।

প্রায় অনেকেই নিজের প্রতিভা তুলে ধরে রাতারাতি এক সাফল্যের শিখরে পৌঁছে স্টার হয়েছেন, হয়েছেন বহু মানুষের কাছে অনুপ্রেরণা।

এই মাধ্যমে একজন মানুষের প্রতিভা খুব কম সময়ের মধ্যে সবার কাছে পৌঁছায়। আবার সেই প্রতিভা দেখিয়ে মানুষের মনোরঞ্জন করে টাকাও উপার্জন করা যায়।

পাশাপাশি এখানে বহু মানুষ তার প্রতিভা ভিত্তিক বহু পথে তার উপার্জনের মাধ্যম করে নিয়েছেন এবং বহু মানুষকে উপার্জনের পথ খুঁজতে সাহায্য করেছেন।

সবদিক দিয়েই যেমন-ব্যবসা, চাকরি, পড়াশোনা, খেলাধুলা, নিজের প্রতিভা ফুটিয়ে তোলা ইত্যাদি ও আরও বহু কিছুতে সাফল্য পেতে এটির সাহায্য নেয় বহু মানুষজন।

v

সব কিছু মিলিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া এক বহু সাহায্যকারী মাধ্যম আমাদের কাছে। বহু পশুপাখির বিভিন্ন মুহূর্তের ভিডিও ভাইরাল হয় এই সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ইদানীং এক কোবরা সাপের হাত থেকে একটি মা মুরগি তার ছানাদের প্রাণ রক্ষা করছে সেই ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে এই সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে একটি কোবরা সাপ তার আহারের জন্য কয়েকটি মুরগি ছানা শিকার করতে এসেছিল। অতঃপর মা মুরগি এটি দেখতে পায়,

এবং ওই মা মুরগিটি ওই বিষধর কোবরা সাপটির সাথে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নির্ভয়ে লড়ে এবং মা মুরগি তার ছানাগুলিকে ওই বিপদপূর্ন স্থান থেকে বের করে আনে,

এবং মা মুরগি তার ছানাদের জীবন ওই কোবরা সাপটির হাত থেকে রক্ষা করতে সফল হয়। এই মুহূর্তটি এক ব্যক্তি ক্যামেরাবন্দী করে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন।

এই ভিডিওটি নিমিষে ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। যে ব্যক্তি এই মুহূর্তটিকে ক্যামেরাবন্দী করেছেন সেই ব্যক্তির উপর ক্ষুব্ধ হয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ার দর্শকরা।

সোশ্যাল মিডিয়ার দর্শকরা জানতে চেয়েছেন যে কেন ওই ব্যক্তি মুরগি এবং মুরগির ছানাদের বাঁচাতে কোনো পদক্ষেপ নেননি।

এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় বহু ভাইরাল ভিডিওর তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে। আপনিও এই ভিডিওটি দেখতে পারেন।

এই ভিডিওটি Snake Catchers ইউটিউব চ্যানেলে এক বছর আগে আপলোড করা হয়েছে। এই ভিডিওটিকে এক কোটিরও বেশি মানুষজন দেখেছেন।

এই ভিডিওটিকে পঁয়তাল্লিশ হাজারেরও বেশি মানুষজন লাইক করেছেন এবং বহু মানুষজন কমেন্ট করে তাদের মতামত জানিয়েছেন।

Check Also

ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যা: বড় ভাইয়ের ফাঁসি, ছোট ভাইয়ের যাবজ্জীবন

ফরিদপুরে এক নারীকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যার দায়ে শাহাবুদ্দিন খান নামে এক ব্যক্তিকে ফাঁসি এবং …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *