ভারতের কারাগারে একই পরিবারের ৭ বাংলাদেশি, মু,ক্তিতে সরকারের হ,স্ত,ক্ষেপ কামনা

অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে ভারতের কারাগারে থাকা সাত বাংলাদেশির মুক্তির জন্য সরকারের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন বাংলাদেশি পরিবারের স্বজনরা। ভারতের কারাগারা থাকা বাংলাদেশিদের বাড়ী কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার বিলুপ্ত ছিটমহল দাসিয়ারছড়ার সমন্বয়পাড়ায়। পরিবারের পক্ষে থেকে আশরাফুল আলম গত ৬ জুলাই কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক বরাবরে আবেদন করে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। কারাগারে থাকা বাংলাদেশিরা জীবন জীবিকার সন্ধানে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে যায়।

ভারতের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে হরিয়ানা রাজ্যের রেওয়ারি জেলার নাহারলাখি গ্রামের ইট ভাটায় র্দীঘদিন ধরে পরিবার-পরিজন নিয়ে কাজ করতেন। ভারতে থাকা বাংলাদেশিরা নিজ দেশে ফেরত আসার জন্য কোচবিহার জেলার সাহেবগঞ্জ থানার সীমান্তবর্তী খারুবাজ এলাকায় দালাল আমিনুল মন্ডলের বাড়ীতে নিয়ে আসেন। তার বাড়িতে কয়েকদিন অবস্থান করে ওই বাংলাদেশিরা। প্রতিটি বাংলাদেশি সীমান্ত পাড় করা ৮ হাজার টাকা চুক্তি হয়। এ সময় দালাল আমিনুল তাদেরকে সীমান্ত অতিক্রমের উপায় খুঁজছিলেন।

গত ৪ জুলাই ভোর ৬ টার দিকে বাংলাদেশিদের সীমান্ত অতিক্রম করার প্রস্তুত্তি নেওয়ার সময় ভারতীয় ১২৯ ব্যাটালিয়নের অধীন সাহেবগঞ্জ ক্যাম্পের বিএসএফের সম্মিলিত বাহিনীর সদস্যরা দালাল আমিনুল ইসলামের বাড়ী থেকে তাদের আটক করে। পরে তাদেরকে সাহেবগঞ্জ থানায় সোপর্দ করে। সাহেবগঞ্জ থানা পুলিশ একই পরিবারের ৭ বাংলাদেশিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে তাদের কারাগারে পাঠিয়ে দেয়। কারাগারে থাকা বাংলাদেশিরা হলেন, মৃত সিরাজুল ইসলামের ছেলে সোনামিয়া (৫০) ও তার স্ত্রী শিফাহারী ওরফে শেফালী (৪৫),

ছেলে হাবিবার (১৮), নুরনবী মিয়া (২৩), পুত্রবধূ (নুরনবীর স্ত্রী) শালিমা বেগম (১৮) নাতি (নুরনবীর ছেলে) সাকিবুল ইসলাম (৭), নাতনি (নুরনবীর মেয়ে) নুরনাহার (৫)। তাদেও মধ্যে তিন পুরুষ দিনহাটা কারাগারে এবং তিন নারী ও এক শিশু কোচবিহার কারাগারে আছেন। আটক ব্যক্তিদের আবেদনকারী পরিবারের সদস্য আশরাফুল আলম জানান, গত ৫ জুলাই সকালে ফুলবাড়ী থানা পুলিশ এবং কাশিপুর ক্যাম্পের বিজিবি সদস্য তাদের বাড়িতে এসে জানায়, তাদের পরিবারের ৭ সদস্য বাংলাদেশের পাথরডুবি সীমান্তের ওপারে ভারতের সাহেবগঞ্জ বিএসএফের হাতে আটক হয়েছেন।

Check Also

আরও ২ মামলায় জামিন পেলেন হেলেনা জাহাঙ্গীর

আওয়ামী লীগের বহিস্কৃত বিতর্কিত ব্যবসায়ী হেলেনা জাহাঙ্গীরকে রাজধানীর গুলশান থানায় মাদক ও পল্লবী থানায় প্রতারণা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *