লকডাউন থাকায় বেঁচে গেল ২ মাদ্রাসাছাত্রীর জীবন

বগুড়ার নন্দীগ্রামের দুই কিশোরি মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রীকে ফুসলিয়ে অপহরন, ধর্ষন ও পরে পাচারকারিদের কাছে বিক্রি করার চেষ্টার অভিযোগে মারুফ (২২) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। গ্রেফতারকৃত মারুফ নন্দীগ্রামের মাহপুজুর রহমানের পুত্র। আজ মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানায় র‌্যাব।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঈদুল আজহার পরেরদিন মাদরাসা পড়ুয়া দুই বান্ধবী নিজ নিজ বাড়ি থেকে পাশের বাড়ি যাওয়ার কথা বলে বের হয়ে যায়। কিন্তু তারা বাড়িতে ফিরে না আসায় ভিকটিমদের অভিভাবক তাদের স্বজনদের বাড়িতে খোঁজাখুঁজি করে। কিন্তু কোন খোঁজ না পাওয়ায় অভিভাবকেরা নন্দীগ্রাম থানা এবং র‌্যাব-১২ বগুড়াকে নিখোঁজের বিষয়টি জানায়। পরবর্তীতে র‌্যাবের গোয়েন্দা টিম অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার ও ভিকটিম উদ্ধারে গোয়েন্দা কার্যক্রম শুরু করে এবং বগুড়া জেলার সম্ভাব্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে।

সোমবার (২৬ জুলাই) দিবাগত রাত একটার দিকে বগুড়া শহরের খান্দার এলাকা থেকে মারুফকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরে তার দেয়া তথ্যমতে দুই মাদরাসাছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়। র‌্যাব-১২ বগুড়ার কোম্পানী কমান্ডার (লে. কমান্ডার) আব্দুল্লাহ আল মামুন (জি) বিএন জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় অপহরণকারী চক্র ওই দুই ছাত্রীকে ফুঁসলিয়ে নন্দীগ্রাম থেকে বগুড়া শহরে নিয়ে আসে।

অপহরণকারী চক্র তাদের ভয় দেখিয়ে চট্রগ্রামে নিয়ে বিক্রি করে দেওয়ার পরিকল্পনা করে। কিন্তু লকডাউনের জন্য কোন সুবিধা জনক গাড়ি না পাওয়ায় তারা বগুড়া শহরে তাদের একটি বাসায় আটকিয়ে রাখে এবং ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ধর্ষষ করার চেষ্টা করে। অভিযানের সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে অন্য অপহরণকারীরা পালিয়ে যায়। মামলা দায়ের পর গ্রেপ্তারকৃত অপহরণকারীকে নন্দীগ্রাম থানায় হস্তান্তর করা হয়।

Check Also

অনলাইন থেকে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’র জন্ম দিলেন নারী

সন্তান পেতে চেয়েছিলেন। তবে শুধু এই কারণে বাধ্য হয়ে কোনো সম্পর্কে জড়াতে চাননি ৩৩ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *