স্বামীকে জামিনে মুক্ত করার কথা বলে গৃহবধূকে ধর্ষণ

কারাগারে আটক স্বামীকে জামিনে মুক্ত করতে টেকনাফ থেকে নারায়ণগঞ্জে এসে দুই দফা ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধূ। এ ঘটনায় মঙ্গলবার দুপুরে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন ওই ভুক্তভোগী নারী। ফতুল্লা থানার আইডিয়াল স্কুল সংলগ্ন আলামিনের বাড়ির চতুর্থ তলার ভাড়াটিয়া ফিরোজ মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে এ মামলায় আসামি করা হয়েছে। ভুক্তভোগী নারীর অভিযোগ, তার স্বামী একটি মাদক মামলায় নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে বন্দি আছেন।

স্বামীকে জামিনে মুক্ত করার কথা বলে অভিযুক্ত ফিরোজ মিয়া তাকে এ মাসের ১৫ তারিখে ফোন করে টাকা নিয়ে নারায়ণগঞ্জ আসতে বলেন। তিনি ফিরোজের কথায় গত ২০ জুলাই ৫৫ হাজার টাকা নিয়ে কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে ফতুল্লায় আসেন। এরপর ফিরোজ তার ভাড়া বাড়ির চতুর্থ তলার ফ্ল্যাটে ওই নারীকে রাখেন। জামিন করানোর জন্য ৫৫ হাজার টাকা নিয়ে নেন।

এদিন রাত সাড়ে ১২টায় ফিরোজ ঘুমন্ত অবস্থায় ওই নারীকে প্রথম ধর্ষণ করেন। পরবর্তীতে ২৬ জুলাই সকাল ১০টার দিকে স্বামীর সঙ্গে দেখা করানোর কথা বলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। হত্যা করার হুমকি দিয়ে তাকে দ্বিতীয়বারের মতো ধর্ষণ করে। পরে তাকে রিকশায় শহরের চাষাড়া এলাকায় ছেড়ে দেন। ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, ওই নারীর অভিযোগে মামলা নেয়া হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ওই নারীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Check Also

৫ অক্টোবর ঢাবির হল খোলার সুপারিশ প্রভোস্ট কমিটির

করোনা পরিস্থিতির কারণে প্রায় দেড় বছর ধরে বন্ধ থাকা আবাসিক হলগুলো খুলে দেওয়ার সুপারিশ করেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *