স্ত্রীকে হত্যার পর বাড়ির উঠানে ৩৬ দিন লাশ পুঁতে রাখে নুনু

মৌলভীবাজারের স্ত্রীকে হত্যার পর নিজ বাড়ির উঠানে ৩৬ দিন লাশ পুঁতে রেখেছিল স্বামী। বুধবার সকালে মাটি খুঁড়ে লাশ উদ্ধারের পাশাপাশি হত্যাকারী স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত সুচিত্রা শব্দকর ওই উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের পাত্রখোলা চা বাগানের পশ্চিম লাইনের সুবাস বাউরী ওরফে নুনুর স্ত্রী।

এ দম্পতির এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। প্রাথমিকভাবে জানা যায়, পারিবারিক কলহের জেরে চলতি বছরের ২২ জুন নিখোঁজ হন সুচিত্রা শব্দকর। ৩৬ দিন পর বুধবার সকালে তার মেয়ে সীমা শব্দকর স্বীকার করেন- বাবার কুড়ালের হাতলের আঘাতে তার মায়ের মৃত্যু হয়। এরপর লাশ বাড়ির উঠানে পুঁতে ফেলে তার বাবা।

এদিকে ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে নিহতের স্বামী ওরফে সুবাস বাউরী ওরফে নুনু। পরে স্থানীয়রা তাকে পাত্রখোলা জামে মসজিদ এলাকা থেকে আটক করে গাছে বেঁধে রেখে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন সুবাস বাউরী ওরফে নুনু। লাশ উদ্ধার ও সুরতহাল কার্যক্রম শেষে বিস্তারিত জানানো হবে।

Check Also

অনলাইন থেকে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’র জন্ম দিলেন নারী

সন্তান পেতে চেয়েছিলেন। তবে শুধু এই কারণে বাধ্য হয়ে কোনো সম্পর্কে জড়াতে চাননি ৩৩ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *