রামবুটান চাষ করে লাভবান পল্লী চিকিৎসক উসমান গণি

ফলের নাম রামবুটান। দেখতে অনেকটা লিচুর মতো। স্বাদও লিচুর। বাইরের দিকটা কাটাকাটা দেখতে। সুদুর মালয়েশিয়া থেকে এনে রামবুটান চাষ করে এলাকায় সাড়া ফেলেছেন নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের হারিপুর গ্রামের উসমান গণি।

উসমান গণি পেশায় পল্লী চিকিৎসক। ১৯৯২ সালে মালয়েশিয়া যাওয়ার ১৩ মাস পর শ্রমিকের চাকরি ছেড়ে দেশে ফেরার পথে ফলটি সঙ্গে করে নিয়ে আসেন। তা থেকে চারা করে বর্তমানে দুটি গাছ থেকে বছরে দেড় লাখ টাকার ওপরে এই ফল বিক্রি করেন। এছাড়া কলম দেওয়া ছোট চারা ৩ হাজার থেকে সাড়ে ৩ হাজার টাকার ওপরে বিক্রি করছেন। এতে ভাল লাভবান হচ্ছেন তিনি।

উসমান গণির সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রতিবছরের মতো এবছরেও দুটি গাছ থেকে প্রায় ৩০০ কেজির মতো রামবুটান সংগ্রহ করতে পারবেন বলে আশা করছেন। যার প্রতি কেজি বর্তমানে ৪০০ টাকা করে বিক্রি করছেন। এবছর আগের ২টিসহ আরো ৩ টি গাছে ফল এসেছে। বর্তমানে তার মোট ১২টি রামবুটান গাছ রয়েছে। জেলাসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন দেখতে আসেন এই রামবুটান। অনেকেই এই ফল চাষে উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন।

স্থানীয়রা জানান, উসমান গণির দেখাদেখি এলাকায় অনেকেই রামবুটান চাষ করতে আগ্রহী হয়ে উঠছে। তবে সরকারিভাবে উদ্যোগ নিলে জেলায় রামবুটানের চাষ আরো বৃদ্ধি পাবে।এ বিষয়ে কলমাকান্দা উপজেলা কৃষি অফিসার ফারুক আহমেদ জানান, রামবুটান চারার দাম বেশি হওয়ায় অনেকেই চাষ করতে পারছেন না। তবে সখের বশে উপজেলায় কয়েকজন চাষ করছেন। সরকারিভাবে এর চাষ বৃদ্ধি করতে কোন পরিকল্পনা নেই।

Check Also

অনলাইন থেকে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’র জন্ম দিলেন নারী

সন্তান পেতে চেয়েছিলেন। তবে শুধু এই কারণে বাধ্য হয়ে কোনো সম্পর্কে জড়াতে চাননি ৩৩ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *