আজ অস্ট্রে,লিয়ার বিপ,ক্ষে যে সময়ে মাঠে নামবে টাইগাররা

দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে প্রায় চার বছর পর নানা রঙ তামাশা করে অবশেষে বাংলাদেশে এসেছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। এই সফরকে ঘিরে নানা ধরণের আবদার করেছে অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু সব আবদার মেনে বিপুল অর্থ খরচ করে শেষ পর্যন্ত আয়োজন হতে চলেছে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়ার এক সপ্তাহে ৫ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ। সবকিছু ঠিক থাকলে আজ মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬ টায় ৫ ম্যাচের টি টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে রিয়াদ-সাকিবদের মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে ওয়েড-স্টার্করা।

এর আগে এই সংস্করণে উভয়ের চারবারের দেখায় প্রত্যেকবারই হেরেছে টাইগাররা। তবে ঘরের মাঠে অজিদের বিপক্ষে ভালো করার সুযোগ দেখছে টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। অজিদের বিপক্ষে ভালো খেলে নিজেদের প্রমাণ করতে চান, ‘টি টোয়েন্টিতেও বাংলাদেশ ভালো দল’। সিরিজ পূর্ববর্তী এক সংবাদ সম্মেলনে অজি অধিনায়ক জানিয়েছেন, তাদের ভাবনায় থাকবেন সাকিব আল হাসান। কারণ হিসেবে রাখছেন ২০১৭ সালের টেস্ট সিরিজে সাকিবের পারফর্ম। তবে দুই দলের দেখায়ও ব্যাট ও বল হাতে সেরা সাকিব। রান সংগ্রহের দিক থেকে সাকিবের পরে আছেন মুশফিকুর রহিম এরপর আছেন অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার।

সাকিব ৪ ম্যাচে ১২৩.২৭ স্ট্রাইকরেটে ৩৫.৭৫ এভারেজে নিয়েছেন ১৪৩ রান, সর্বোচ্চ ৬৬ রান। বল হাতেও দুই দলের ভিতর সাকিব উইকেট শিকারের দিক থেকে সবার উপরে। সাকিব ৪ ইনিংসে ১৩ ওভার বল ঘুরিয়ে ৫ উইকেট নেন যেখান বোলিং ইকোনমি ৭.৮৪ এক ইনিংসে সর্বোচ্চ উইকেট নেন ২৭ রান ৩ উইকেট। গত মাসে জিম্বাবুয়ে থেকে সফল এক সিরিজ শেষ করে এসেছে বাংলাদেশ দল। সফরে একমাত্র টেস্ট, তিন ওয়ানডে সিরিজের সবকয়টি ম্যাচের পাশাপাশি টি টোয়েন্টি সিরিজও ২-১ ব্যবধানে নিজেদের করে নিয়েছেন তারা। রোডেশিয়ানদের বিপক্ষে সেই সিরিজের রেশ কাটতে না কাটতেই টাইগারদের সামনে অজিরা।

এবার ঘরের মাঠের ফায়দা লুটে সিরিজে ভালো করতে মরিয়া আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ। এদিকে, অজি দলও ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে সফর শেষ করে এসেছেন। সেখানে ওয়ানডে সিরিজটা নিজেদের করে নিলেও ৪-১ ব্যবধানে হেরে এসেছেন টি টোয়েন্টি সিরিজ। অজি অধিনায়ক ম্যাথু ওয়েড তার দলে পাচ্ছে না ওয়ার্নার-স্মিথ-ম্যাক্সওয়েলদের। চোটে পরে ছিটকে গেছেন অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ ও পেসার রিলে মেরেডিথ। তবে নতুন অধিনায়ক ওয়েড তার দলে পাচ্ছেন মিচেল স্টার্ককে। বাংলাদেশ স্কোয়াড: মাহমুদউল্লাহ (অধিনায়ক), মোহাম্মদ নাইম শেখ, সাকিব আল হাসান, সৌম্য সরকার, আফিফ হোসেন, শামীম হোসেন, নুরুল হাসান সোহান,

নাসুম আহমেদ, শেখ মেহেদী হাসান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, রুবেল হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, মোহাম্মদ মিঠুন, তাইজুল ইসলাম। সিরিজে বাংলাদেশের স্কোয়াড অস্ট্রেলিয়ার স্কোয়াড: অ্যাস্টন অ্যাগার, ওয়েস অ্যাগার, জেসন বেহরেনডর্ফ, অ্যালেক্স ক্যারি, ড্যান ক্রিশ্চিয়ান, জশ হ্যাজলউড, মইসেস হেনরিকস, মিচেল মার্শ, বেন ম্যাকডেরমট, রিলে মেরেডিথ, জশ ফিলিপ, মিচেল স্টার্ক, মিচেল সুয়েপসন, অ্যাশটন টার্নার, অ্যান্ড্রু টাই, ম্যাথু ওয়েড (অধিনায়ক) ও অ্যাডাম জাম্পা।

Check Also

অনলাইন থেকে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’র জন্ম দিলেন নারী

সন্তান পেতে চেয়েছিলেন। তবে শুধু এই কারণে বাধ্য হয়ে কোনো সম্পর্কে জড়াতে চাননি ৩৩ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *