জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ফল বিতর্ক, এক বিষয়ে গণফেল

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৫-১৬ সেশনের পরীক্ষার চতুর্থ বর্ষের ফল নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। চার বছরে সব বিষয়ে এ প্লাস পেলেও মাত্র একটি বিষয়ে ফেল করায় হতাশা আর ক্ষোভ প্রকাশ করছেন অনেক শিক্ষার্থী।

সবমিলিয়ে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন ৬০ হাজার পরীক্ষার্থী, যার মধ্যে এক বিষয়ে ফেল ২৪ হাজারের বেশি। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি, খাতা মূল্যায়ন হয়েছে নিয়ম মেনেই।গত ২০ জুলাই ২০১৫-১৬ সেশনের চতুর্থ বর্ষের ফল প্রকাশ করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। এর সপ্তাহখানেক পরেই হয় অনার্সের সমন্বিত ফলাফল।

এই পরীক্ষায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ৬৭৬টি কলেজ থেকে ২ লাখ ১৬ হাজার শিক্ষার্থী অংশ নেন। যেখানে, ফেল করেছেন ৬০ হাজার। এমনকি এক বিষয়ে ফেলের সংখ্যাও ২৪ হাজার ছাড়িয়েছে। সব বিষয়ে এ প্লাস বা এর কাছাকাছি নম্বর পেলেও অনেকেই অকৃতকার্য হয়েছেন একটি বিষয়ে। যা অসম্ভব বলছেন পরীক্ষার্থীরা। এ মূল্যায়ন নিয়ে ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন তারা।

ক্ষোভ প্রকাশ করে এক পরীক্ষার্থী বলেন, ‘সব বিষয়ে এ প্লাস, একটা সহজ বিষয়ে কিভাবে ফেল হয়? গত তিন বছরে কোনো ফেল নেই।’

তাদের অভিযোগ, খাতা মূল্যায়ন সঠিকভাবে হয়নি।অপর এক পরীক্ষার্থী বলেন, ‘ঠিক ভাবে খাতা দেখা হয় নি। কোনো ভাবে মূল্যায়ন করা হয়েছে।’

Check Also

অনলাইন থেকে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’র জন্ম দিলেন নারী

সন্তান পেতে চেয়েছিলেন। তবে শুধু এই কারণে বাধ্য হয়ে কোনো সম্পর্কে জড়াতে চাননি ৩৩ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *