স্ত্রীর পরকীয়ার বলি সন্দেহে দাফনের ৮ সপ্তাহ পর তোলা হলো স্বামীর লাশ

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে স্ত্রীর পরকীয়ার বলি সন্দেহে দাফনের ৮ সপ্তাহ পর কবর থেকে তোলা হয়েছে স্বামীর লাশ। মঙ্গলবার দুপুরে লাশ তোলার পর ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত মো. বাবলু চৌধুরী ওই উপজেলার পোরজনা ইউনিয়নের হরিনাথপুরের সাত্তার মোল্লার ছেলে।

পরিবারের অভিযোগ, পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় বাবুল চৌধুরীকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছেন স্ত্রী রেখা খাতুন। ওই ঘটনায় রেখাসহ সাতজনকে আসামি করে আদালতে হত্যা মামলা করেন নিহতের ভাই আবুল হোসেন। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে আদালতের নির্দেশে ময়নাতদন্তের জন্য দাফনের ৮ সপ্তাহ পর মঙ্গলবার দুপুরে শাহজাদপুরের ইউএনও শাহ মো. শামসুজ্জোহার নেতৃত্বে কবর থেকে বাবুল চৌধুরীর লাশ তোলা হয়। নিহতের স্ত্রী রেখা খাতুন বলেন, ৯ জুন রাতে আমি আমার সন্তানকে নিয়ে এক ঘরে ঘুমিয়ে ছিলাম। ওই সময় আমার স্বামী পাশের ঘরে ছিলেন। স্বামীর কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে স্বামীকে ডাক দেই।

কিন্তু তিনি উত্তর না দিলে আমি তার গায়ে ধাক্কা দিয়ে দেখি তিনি অচেতন হয়ে পড়ে আছেন। ওই সময় আমি চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে আমার স্বামীকে মৃত অবস্থায় পান। পরদিন স্বাভাবিকভাবেই তাকে দাফন করা হয়। শাহজাদপুরের ইউএনও শাহ মো. শামসুদ্দোহা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

Check Also

অনলাইন থেকে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’র জন্ম দিলেন নারী

সন্তান পেতে চেয়েছিলেন। তবে শুধু এই কারণে বাধ্য হয়ে কোনো সম্পর্কে জড়াতে চাননি ৩৩ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *