কারা বিছানায় নিয়ে গেলো, তাদেরকেও ধরা হোক: জ্যো,তি

জনপ্রিয় অভিনেত্রী পরীমণিকে বুধবার মাদক মামলায় আটক করা হয়েছে। এরপর গতকাল বৃহস্পতিবার তাকে ৪ দিনের রিমান্ড দিয়েছে আদালত। পরীমণিকে আটকের পর থেকেই শোবিজ অঙ্গন উত্তাল। তাকে নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনা চলছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পরীমণিকে নিয়ে নিজের মতামত ব্যক্ত করেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি। তার স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো। ‘‘মেরুদণ্ডহীন হয়ে চুপটি,ঘাপটি মেরে বসে থাকা স্বভাবে নেই, তাই পরীমণিকে কিছু বলতেই হচ্ছে। পরীমনি আমার কাছে ইন্ডা,স্ট্রির সব থেকে সুন্দরী, আবেদনময়ী নায়িকা।

তার স,ঙ্গে আমার কখনো পরিচয় হয়নি কিন্তু আমি তার সৌন্দর্যে মুগ্ধ। পরীমনির নাম আমি প্রথম আমার এক সাংবাদিক বন্ধুর মুখে শুনেছিলাম সাথে তার রূপের প্রশংসাও। তখন তার কোন কাজ মুক্তি না পেলেও অনেক ছবি সাইন করেছেন এই নিয়ে নিউজে থাকতেন। ছবির সংখ্যা অল্প বা মানহীন ছবি তবু কীভাবে পরীমনি এত আলোচনায় সেটা নিয়ে কোনো দিন মাথাব্যথা ছিল না আমার, কিংবা তার কতদামী বাড়ি, গাড়ি সেসব নিয়েও না। কে কীভাবে টাকা ইনকাম করবে সেটা তার ব্যক্তিগত বিষয়, যদি সে সমাজবিরোধী কাজ করে আয়ের পথ বেছে নেয় তার জন্য আইন আছে।

মিডিয়ার কাজ করার কারণে পরীমনি সম্পর্কে এই সেই কানে চলে আসে। যেমন-পরীমনির বিগশট বয়ফ্রেন্ডস, জন্মদিনের বিশাল পার্টির স্প,ন্সরশিপ, জন্মদিনের পার্টিতে গিয়ে বিগলিত পোজে তারকা-সাংবাদিকদের ছবি,যেন এই পার্টিতে গিয়েই কেউ কেউ জাতে উঠলো,পরীমনিকে প্রেমিকা-বোন-স্ত্রী-মেয়ে নানান সম্পর্কে জড়িয়ে বিভিন্ন স্বার্থ হাসিল করা,পরীমনির নেশা-নাইট-নাগর, শুটিংয়ে সে কি আকাম কুকাম করলো-সেসব নিয়ে রসালো কিচ্ছা। এসব শুনে আমার মনে হতো মেয়েটার কি কোন সত্যিকার বন্ধু নেই যে তাকে একটু গাইড করবে! নাহয় সে এতিম, অশিক্ষিত, ক্লাসহীন সমাজ থেকে উঠে আসা। কিন্তু ভদ্রলোক যারা তার আশেপাশে থাকতেন তারা শুধু মেয়েটার কাছ থেকে সুযোগ-সুবিধাই নিলেন, একটুও দায়িত্ববান হতে পারলেন না!

পর্দার নায়িকা জীবন বাস্তবে যাপন করে একটা মানুষ কিভাবে বাঁচে। কবে যে কি একটা দুর্ঘটনা ঘটে….অসম্ভব সুন্দরী এই নায়িকার জন্য আমার এই শংকাটা হতো! পরীমনির এই সংকট সময়ে একজন নারী হিসেবে আমি চাই, তার সাথে যেন সঠিক বিচার করা হয়। আর যদি তার অপরাধ হয় উচ্ছৃঙ্খল জীবন যাপন, বিছানায় যাওয়া, নেশা করা, মদ খাওয়া, কোটি কোটি টাকার চলাফেরা এসব হয় তাহলে যারা তাকে শৃঙ্খলা থেকে বের করলো, বিছানায় নিয়ে গেলো, মদ সাপ্লাই করলো, নেশায় সঙ্গ দিলো, কোটি কোটি টাকা দিলো তাদেরকেও ধরা হোক, আইনের আওতায় আনা হোক। তাদেরও বিচার করা হোক। কারণ আমরা সবাই জানি এই কাজগুলো একা একা করা যায় না। যদি তা নয় তাহলে এই সমাজ ব্যবস্থার প্রতি ধিক্কার জানিয়ে আমি এই সুন্দরী নায়িকাটির সুন্দর জীবনের প্রার্থনায় থাকবো।’’

Check Also

অনলাইন থেকে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’র জন্ম দিলেন নারী

সন্তান পেতে চেয়েছিলেন। তবে শুধু এই কারণে বাধ্য হয়ে কোনো সম্পর্কে জড়াতে চাননি ৩৩ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *