মেয়ের স্পর্শকাতর জায়গায় বাবার হাত, টের পেয়ে জড়িয়ে ধরল ছেলে

স্ত্রীর আর দুই সন্তান নিয়ে এক ঘরেই থাকেন ৫০ বছর বয়সী আক্তার হোসেন। সম্প্রতি ১৬ বছরের মেয়ের প্রতি কুনজর পড়ে তার। একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কের জন্য চাপও দেন লম্পট বাবা। একদিন গভীর রাতে স্ত্রীকে ঘুমে রেখে মেয়ের কাছে যান আক্তার। স্পর্শকাতর জায়গায় হাত দিতেই টের পেয়ে বাবাকে জড়িয়ে ধরল ছেলে। ঘটনাটি নারায়ণগঞ্জের। নিজ মেয়েকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে রোববার দুপুরে জেলার ফতুল্লা থানার নরসিংপুর এলাকা থেকে আক্তার হোসেনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর আগে এ ঘটনায় মামলা করেন ভুক্তভোগী কিশোরীর মা।

গ্রেফতার আক্তার শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার নশাসন এলাকার ছেকেন সরদারের ছেলে। তবে পরিবার নিয়ে নরসিংপুর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন তিনি। মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, আক্তার হোসেন প্রায়ই নিজের ১৬ বছরের মেয়েকে শারীরিক সম্পর্কের জন্য চাপ দিতেন। বিষয়টি মাকে জানান মেয়েটি। এরপর অভিমান করে স্বামীকে বাসা থেকে চলে যেতে বলেন স্ত্রী। এ নিয়ে স্ত্রীর ওপর ক্ষিপ্ত হন আক্তার। ৩ আগস্ট রাতের খাবার খেয়ে বাসার মেঝেতে স্ত্রীকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন আক্তার। একই কক্ষে খাটে কিশোরী মেয়ে ও ছেলে ঘুমান।

রাত আড়াইটার দিকে স্ত্রীকে ঘুমে রেখে মেয়ের খাটে যান বাবা। এরপর মেয়ের পরনের পাজামা খুলে স্পর্শকাতর জায়গায় হাত দেন। মেয়ের চিৎকারে ঘুম থেকে উঠে আক্তার হোসেনকে জড়িয়ে ধরেন ছেলে। পরে মায়ের কাছে ঘটনার বর্ণনা দেন মেয়েটি। ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় রোববার আক্তার হোসেনের বিরুদ্ধে ধর্ষণচেষ্টা মামলা করেন ভুক্তভোগী কিশোরীর মা। পরে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

Check Also

অনলাইন থেকে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’র জন্ম দিলেন নারী

সন্তান পেতে চেয়েছিলেন। তবে শুধু এই কারণে বাধ্য হয়ে কোনো সম্পর্কে জড়াতে চাননি ৩৩ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *