বাড়ি ফিরলেন সাত বছর আগে ‘খুন’ হওয়া যুবক

বগুড়ায় সাতবছর আগে খুন হওয়া শামীম (২৬) নামে এক যুবককে হঠাৎ দেখা গেছে সাইকেল চালিয়ে ঘোরাফেরা করতে। অথচ তাকে খুনের মামলায় সাড়ে চার মাস জেল খেটেছেন আজিজার রহমান (৩১) নামের এক ব্যক্তি। সাত বছর ধরে আদালতে নিয়মিত হাজিরাও দিয়ে আসছেন তিনি। দীর্ঘ সাত বছর পর সোমবার (৯ আগস্ট) সকালে হঠাৎ শামীমের দেখা মিলেছে বগুড়ার সদর উপজেলার মানিকচক এলাকায়।

শামীম জীবিতের খবর ছড়িয়ে পড়লে শতশত মানুষ তাকে দেখতে আসে। পরে বগুড়া সদর থানায় পুলিশ শামীমকে হেফাজতে নিয়ে যায়। শামীম সদর উপজেলার শাখারিয়া এলাকার বাসিন্দা। তার বাবার নাম শাহিন। আর আজিজার রহমান পাশবর্তী মানিকচকের বাসিন্দা। তার বাবার নাম মৃত ধলু প্রামাণিক। আজিজার পেশায় মুদির দোকানের কর্মচারী। আজিজার রহমান বলেন, শামীমের কাছ থেকে এক লাখ টাকা পাওনা ছিল। সাত বছর আগে শামীমকে টাকা জন্য চাপ দেই। ওই সময়ই শামীম গ্রাম থেকে উধাও হয়ে যায়। পরে আমার বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন শামীমের মা ঝর্ণা বেগম।

তিনি আরও বলেন, শামীম হত্যা মামলাা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। আমি এ মামলায় সাড়ে চারমাস জেল খেটেছি। এখনো নিয়মিত আদালতে হাজিরা দিয়ে আসছি। সোমবার সকালে মানিকচক এলাকায় শামীমকে বাইসাইকেল চালিয়ে ঘোরফেরা করতে দেখি। পরে আমার ছোটভাই তাকে আটক করে। পরবর্তীতে বিষয়টি ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ তাকে (শামীম) থানায় নিয়ে যায়। বগুড়ার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজা বলেন, শামীম থানা হেফাজতে রয়েছেন। হত্যা মামলাটি আদালতে বিচারাধীন।

Check Also

৫ অক্টোবর ঢাবির হল খোলার সুপারিশ প্রভোস্ট কমিটির

করোনা পরিস্থিতির কারণে প্রায় দেড় বছর ধরে বন্ধ থাকা আবাসিক হলগুলো খুলে দেওয়ার সুপারিশ করেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *