স্বামী বশের তাবিজের প্রলোভনে নারীর শ্লীলতাহানী, মাওলানা গ্রেফতার

কুড়িগ্রাম সদরে এক নারীকে স্বামী বশের তাবিজ দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে শ্লীলতাহানীর ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত কবিরাজ মাওলানা মোফাচ্ছের হোসেন সামসিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার তাকে কারাগারের মাধ্যমে আদালতে পাঠানো হয়। গ্রেফতারকৃত সামসি একজন মাদ্রাসা শিক্ষক ও মসজিদের সাবেক ইমাম। তিনি সদর উপজেলার হরিকেশ কানিপাড়া গ্রামের মৃত শামছুল হকের ছেলে।

ভুক্তভোগী নারীর স্বামীর দায়ের করা মামলার পর সোমবার (১৬ আগস্ট) রাতে সামসিকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিস জানায়, একসময় কুড়িগ্রাম সদরের একট মসজিদে ইমামের দায়িত্ব পালন করতেন সামসি। তখন নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগে তাকে চাকরি থেকে বহিস্কার করা হয়। এখন তিন সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের একটি মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করেন। তাছাড়া হজের টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অপরাধে তিনি একবার জেল কাটেন।

বিভিন্ন সময় নারীদেরকে প্রলোভন দেখিয়ে একাধিক অপকর্ম করার অভিযোগও তার নামে রয়েছে। এ বিষয়ে কুড়িগ্রাম সদর থানার ওসি খান মোহাম্মদ শাহরিয়া জানান, কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার হরিকেশ কানিপাড়ার এক নারীর স্বামীকে বশে আনার জন্য তাবিজসহ বিভিন্ন উপায়ে প্রলোভন দেখিয়ে আসছিলেন মাওলানা মোফাচ্ছের হোসেন সামসি।

প্রলোভনের ফাঁদে পা দিয়ে বিভিন্ন সময় ওই নারী মাওলানা মোফাচ্ছের হোসেনের নির্দেশনা মেনে আসছিলেন। তিনি জানান, গত ১৩ আগস্ট সুযোগ পেয়ে নারীকে শ্লীলতাহানিসহ যৌন নির্যাতনের চেষ্টা করে অভিযুক্ত ব্যক্তি। এরপর সোমবার ভুক্তভোগী নারীর স্বামীর দায়ের করা এক এজাহারের ভিত্তিতে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়।

Check Also

আরও ২ মামলায় জামিন পেলেন হেলেনা জাহাঙ্গীর

আওয়ামী লীগের বহিস্কৃত বিতর্কিত ব্যবসায়ী হেলেনা জাহাঙ্গীরকে রাজধানীর গুলশান থানায় মাদক ও পল্লবী থানায় প্রতারণা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *