আল্লামা শফীর কবরের পাশেই বাবুনগরীকে কবর দেওয়া হয়েছে

হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী কে হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শফীর কবরের পাশেই কবর দেওয়া হচ্ছে। সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায় ১০ থেকে ১২ জন লোক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী কবর তৈরিতে ব্যস্ত। একদম সাবেক আমির আল্লামা শফীর কবরের পাশেই চিরায়িত হবেন হেফাজতের বর্তমান আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

হেফাজতের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মীর ইদরিস বলেন, হেফাজতের সাবেক আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফীর কবরের পাশেই বাবুনগরীকে দাফন করা হবে। এখন কবর খনন করার কাজ চলছে। উল্লেখ, রাত ১১ টায় হাটহাজারী দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদরাসায় তার নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। নামাজে জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হবে। এর আগে বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) চট্টগ্রামের সিএসসিআর হাসপাতালে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তিনি মারা যান। এরপর দুইটার দিকে তার মরদেহ হাটহাজারী মাদরাসায় আনা হয়।

মাদরাসায় দুই ঘন্টা রাখার পর লাশ নিয়ে যাওয়া হয় তার গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে। সেখান থেকে সন্ধ্যার পর লাশ হাটহাজারীতে নিয়ো আসার কথা রয়েছে। এর আগে বেলা ১১টার দিকে হাটহাজারী মাদরাসা থেকে ফায়ার সার্ভিসের অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে চট্টগ্রামে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। বাবুনগরীর খাদেম মাওলানা জুনায়েদ গণমাধ্যমকে জানান, বুধবার সন্ধ্যার পর থেকে বাবুনগরীর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে তার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়। পরে অ্যাম্বুলেন্স ডেকে তাকে নিয়ে হাসপাতালের দিকে রওনা হন সঙ্গীরা। ৬৭ বছর বয়সী আল্লামা বাবুনগরী দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগ, কিডনি ও ডায়াবেটিসসহ বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন। গত ১০ আগস্ট দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর একটি হাসপাতালে জুনায়েদ বাবুনগরীর চোখের একটি অপারেশনও করা হয়। উল্লেখ্য, গত ৭ জুন মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরীকে আমির ও মাওলানা নুরুল ইসলামকে মহাসচিব করে ৩৩ সদস্য বিশিষ্ট হেফাজতের কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করা হয়েছিল।

Check Also

অনলাইন থেকে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’র জন্ম দিলেন নারী

সন্তান পেতে চেয়েছিলেন। তবে শুধু এই কারণে বাধ্য হয়ে কোনো সম্পর্কে জড়াতে চাননি ৩৩ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *