যে রণকৌশল তালেবানকে জয়ী করেছে

মাত্র ১১ দিনের মাথায় তালেবান যোদ্ধাদের হাতে সমগ্র আফগানিস্তান, এমনকি বিনা বাধায় কাবুল দখল ২০ বছর পূর্ণ শক্তিতে থাকা আমেরিকাকেও হতভম্ব করেছে। পেন্টাগন ও সিআইএ ধারণা করেছিল, যুক্তরাষ্ট্রের সৈন্য প্রত্যাহারের পর তালেবানের কাবুল দখল করতে অন্তত ছয় মাস সময় লাগবে।

বিশ্বকে হতবাক করে ছয় দিনে কাবুল দখল করে পরাশক্তি যুক্তরাষ্ট্রকে তালেবান কার্যত মাটিতে নামিয়েছে। যেভাবে ৩০০ বছরে আরও দুই পরাশক্তি ব্রিটিশ-ভারত ঔপনিবেশিক শক্তি ও বিংশ শতাব্দীতে পরম বিক্রমশালী সোভিয়েত ইউনিয়নকে নামানো হয়েছিল। এখানে একটি তথ্য লক্ষণীয়। তৃতীয় আফগান যুদ্ধের পর ৪০ বছরের মাথায় ব্রিটেন বিশ্বজুড়ে তার উপনিবেশ হারায়। আর আফগান যুদ্ধের পর মাত্র তিন বছরের মধ্যে সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে যায় এবং বিশ্বব্যাপী তার শক্তি হারায়। সেই হিসাবে এবার যুক্তরাষ্ট্রের পালা।

বিজ্ঞাপন
পেন্টাগন ও আমেরিকান জেনারেলরা আফগানিস্তানে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠায় সেখানকার পশতুন জনগোষ্ঠীর বাইরে অ–পশতুন অঞ্চলের যুদ্ধবাজ নেতা ও তাঁদের অনুগত কথিত হাজার হাজার মিলিশিয়ার ওপর নির্ভর করেছিল। তাঁদের মধ্যে প্রধান ছিলেন হেরাতের ইসমাইল খান ও তাঁর পরের প্রজন্মের উত্তরসূরিরা, উত্তরে-পশ্চিমে বালখ প্রদেশের প্রচণ্ড তালেবানবিরোধী আবদুর রশিদ দোস্তাম ও আতা মোহাম্মদ নুর। উত্তরে তাজিক-অধ্যুষিত পাঞ্জশির উপত্যকায় প্রয়াত আহমেদ শাহ মাসুদের উত্তরসূরি পুত্র আহমেদ মাসুদকে তারা কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছে। যুক্তরাজ্য তাঁকে রয়্যাল মিলিটারি একাডেমি স্যান্ডহার্স্টে পাঠিয়েছিল। পরে লন্ডন কিংস কলেজ থেকে ‘ওয়ার স্টাডিজ’-এ স্নাতক ডিগ্রি গ্রহণ করেন।

যুদ্ধবাজ নেতাদের পেছনে যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো কত মিলিয়ন ডলার খরচ করেছে, তার পরিসংখ্যান হয়তো সামনে পাওয়া যাবে। তবে শুধু যুদ্ধ ও কথিত দেশ পুনর্গঠনে যুক্তরাষ্ট্র ২ দশমিক ৬ ট্রিলিয়ন ডলার এবং যুক্তরাজ্য ৩৭ বিলিয়ন ডলার খরচ করেছে। এই হিসাবের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ ও যুক্তরাজ্যের এমআই-৬–এর অপ্রদর্শিত খরচ অন্তর্ভুক্ত নয়।

Check Also

অনলাইন থেকে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’র জন্ম দিলেন নারী

সন্তান পেতে চেয়েছিলেন। তবে শুধু এই কারণে বাধ্য হয়ে কোনো সম্পর্কে জড়াতে চাননি ৩৩ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *