জিয়া ছিলেন পাকিস্তানের এজেন্ট ও গুপ্তঘাতক: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান এমপি বলেছেন ‘জিয়াউর রহমান ছিলেন পাকিস্তানের এজেন্ট ও গুপ্তঘাতক’। বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের মাটিকে কোনো দিনও বিশ্বাস করেনি জিয়া ও খালেদা। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলায় খুনি জিয়ার কোনো স্মৃতি জাদুঘর থাকবে না। রাষ্ট্রীয় অর্থে পরিচালিত কোনো জাদুঘর জিয়ার নামে থাকতে পারে না। তাই চট্টগ্রাম পুরোনো সার্কিট হাউসে জিয়ার নামে চলা জাদুঘর সরিয়ে ফেলা হবে। সেই ভবনকে পুনরায় সার্কিট হাউসে পরিণত করা হবে।

বিজ্ঞাপন
আজ বৃহস্পতিবার জামালপুরের সরিষাবাড়ীর বয়ড়া ইসরাইল আহাম্মেদ উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে পোগলদিঘা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজিত বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মুরাদ হাসান।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপি বাংলার ইতিহাসের কালো অধ্যায়। দেশকে শান্তি, উন্নয়ন, গণতন্ত্র, অসাম্প্রদায়িক বৈষম্য মুক্তির ধাপে নিয়ে যেতে হলে এই শত্রুকে ধ্বংস করতে হবে। বিএনপি এখন ইতিহাসের ডাস্টবিন, ময়লার টিন, ইতিহাসের ভাগাড়। এ ডাস্টবিন নিয়ে আমরা গণতন্ত্রের পথে হাঁটতে পারব না। খালেদা জিয়ার চক্রান্ত এখনো অব্যাহত আছে। কোনো খুনিকে বাংলাদেশের রাজনীতিতে হালাল হতে দেব না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহস আছে। তিনি নিজের অর্থায়নে পদ্মা সেতুসহ অনেক অভূতপূর্ব উন্নয়ন কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে সেটি প্রমাণ করেছেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতার হত্যার মূল মদদদাতা, মূল পরিকল্পনাকারী এবং বাস্তবায়নকারী প্রধান কুশীলব, পরবর্তীতে তথাকথিত রাষ্ট্রনায়ক খুনি জিয়াউর রহমানের মরণোত্তর বিচার বাংলার মাটিতে হবে।

Check Also

অনলাইন থেকে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’র জন্ম দিলেন নারী

সন্তান পেতে চেয়েছিলেন। তবে শুধু এই কারণে বাধ্য হয়ে কোনো সম্পর্কে জড়াতে চাননি ৩৩ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *