শুধু মাএ ‘অ’শ্লীলতার’ কারণে ‘সিনেমা’ ছেড়েছিলামঃশিল্পী

নব্বই দশকের জনপ্রিয় নায়িকা শিল্পী। সে সময় অনেক দর্শকপ্রিয় ছবি উপহার দিয়েছেন তিনি। ২০০১সালের শেষের দিকে মুক্তি পায় তার অভিনীত শেষ ছবি।দুই দশক আগে সিনেমাকে বিদায় জানিয়েছেন।এখন তিনি ব্যস্ত রয়েছেন স্বামী-সন্তান ও সংসার নিয়ে। কিন্তু হঠাৎ করে কেন সিনেমা থেকে দূরে সরে গিয়েছিলেন?এমন প্রশ্নের উত্তরে শিল্পী বলেন, সত্যি বলতে অশ্লীলতার কারণে সিনেমা ছেড়েছিলাম। পরিবেশ

ছিলো না সিনেমা করার। যদিও ২০০৪ সাল পর্যন্ত টিভি নাটকে কাজ করেছিলাম।সিনেমায় অভিনয় করছেন না অনেক বছর। এ অঙ্গনকে কি মিস করেন? উত্তরে শিল্পী বলেন, অবশ্যই মিস করি। এটাই তো আমার পরিচয়ের বড় জায়গা। আপনাকে সামনে কি কখনও সিনেমায় পাওয়া যাবে? শিল্পী বলেন,

আমরা যে মানের কাজ করতাম সেই মানের কাজ হচ্ছে না। তাই সিনেমায় কাজের আর ইচ্ছে নেই। তাছাড়া ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও ব্যস্ততা আছে। বর্তমান চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন দেখছেন? শিল্পী বলেন, একে তো ছবি হচ্ছে না। আবার সিনেমা হলও নেই।

প্রযোজকরা লগ্নি করছে না। লগ্নি করলেও টাকা কোথা থেকে ফিরে আসবে! সেই পথই তো দেখছি না। সিনেমা চালানোর জায়গাও নেই! এদিকে নতুন নায়ক নায়িকাও আসছে না।আমরা যখন কাজ শুরু করেছি তখন ৬০/৭০ লাখ টাকায় সিনেমা হতো। প্রযোজকরা ভরসা করতেন চোখ বন্ধ করে। এখন তো নতুনরা আসলে প্রযোজকরা বিনিয়োগই করতে চান না।

Check Also

আবরারের পরিবারকে ১২ বছর মাসিক ৭৫ হাজার টাকা দেবে বুয়েট!

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) আগামী ১২ বছরের জন্য নিহত বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *