দেশ ছেড়ে পাকিস্তানে আশ্রয় নিলেন আফগান নারী ফুটবলাররা

তালেবেনরা আফগানিস্তান দখলের পর থেকে দেশ ছেড়ে পালাচ্ছে মানুষ। ক্ষমতা দখল করেই ক্রীড়াঙ্গনে নারীদের নিষিদ্ধ করেছে তালেবান সরকার। এবার দেশ ছেড়েই পালালেন আফগানিস্তানের নারী ফুটবলাররা। পরিবারের সদস্যদের নিয়ে তারা আশ্রয় নিয়েছেন প্রতিবেশী রাষ্ট্র পাকিস্তানে।
বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, পাকিস্তানে আশ্রয় নেয়া নারী ফুটবলারদের অনেকেই বয়সভিত্তিক ফুটবল দলের। এ সংখ্যাটা কমপক্ষে ৮১। আরো ৩৪ জনের পাকিস্তানে পৌঁছানোর কথা।

পাকিস্তান ফুটবল ফেডারেশনের কর্মকর্তা উমর জিয়া বলেন, আপাতত পাকিস্তানে থাকবেন এই ফুটবলার ও তাদের পরিবার। ৩০ দিন পর তারা তৃতীয় কোনো দেশে চলে যাওয়ার জন্য আবেদন করবেন। আমেরিকা, ইংল্যান্ড কিংবা অস্ট্রেলিয়ার মতো দেশে তাদের পাঠানোর ব্যাপারে চেষ্টা করবে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো।

তোরখাম সীমান্ত দিয়ে তারা পাকিস্তান পৌঁছেছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স। পাকিস্তানের লাহোরের গাদ্দাফি স্পোর্টস কমপ্লেক্সে তাদের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

আগানিস্তান তালেবান দখলদারির পর থেকে প্রচুর মানুষ দেশ ছাড়ছেন। এঁদের মধ্যে একটা বড় অংশ বুদ্ধিজীবী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও খেলোয়াড়েরা। ১৯৯৬ থেকে ২০০১ পর্যন্ত আফগানিস্তানে প্রথম তালেবান শাসনের সময় নারীদের ওপর খড়্গহস্ত ছিল তারা। সেখানে মেয়েদের স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়া নিষিদ্ধ ঘোষিত হয়েছিল। নারীদের কাজকর্ম করার ব্যাপারেও নেমে এসেছিল নিষেধাজ্ঞা। সে সময় নারীদের খেলাধুলায় অংশগ্রহণ ছিল বড় ধরনের অপরাধ।

Check Also

ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যা: বড় ভাইয়ের ফাঁসি, ছোট ভাইয়ের যাবজ্জীবন

ফরিদপুরে এক নারীকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যার দায়ে শাহাবুদ্দিন খান নামে এক ব্যক্তিকে ফাঁসি এবং …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *