বিভেদ দ্রুত ছড়াতে বারবার ধর্মকে ব্যবহার করা হয়েছে’

দেশে বিভেদ দ্রুত ছড়াতে বারবার পবিত্র কোরআন ও ধর্মকে ব্যবহার করা হয়েছে। নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা বলেন, সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক হামলার মূলেও পরিকল্পিতভাবে ধর্মকে ব্যবহার করেছে একটি মহল। আর কোন রাজনৈতিক দলের সমর্থন ছাড়া এটা হতে পারে না।

সাম্প্রদায়িক হামলা রুখতে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে এগিয়ে আসার পরামর্শ দেন নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা। এদিকে দেশের বিভিন্ন স্থানে মন্দির-মন্ডপ, হিন্দুদের ঘরবাড়ি-ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও উপাসনালয়ে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় এ পর্যন্ত ৭০ মামলা হয়েছে।

কুমিল্লা, নোয়াখালী, ফেনী, চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ, চট্টগ্রাম, রংপুরসহ বিভিন্ন স্থানে মামলায় আসামি হয়েছেন ১০ সহস্রাধিক। গতকাল গ্রেফতার হয়েছেন ২৬৩ জন। এ নিয়ে সাম্প্রদায়িক হামলায় এ পর্যন্ত ১৬ জেলায় পাঁচ শতাধিক গ্রেফতার হলেন।

No description available.

দেশে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসী হামলার দায় কেউ এড়াতে পারেন না। প্রতিটি পূজামন্ডপে নিজস্ব পোশাকধারী পাহারাদার, মন্ডপের চাহিদা অনুযায়ী ৫ থেকে ২০ জন অস্ত্রধারী আনছার সদস্য থাকার কথা ছিল। এছাড়া মন্ডপগুলোতে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনার নির্দেশনাও ছিল না। কিন্তু কুমিল্লার সেই পূজামন্ডপে এসব কোন নির্দেশনাই মানা হয়নি। একজন পাহারাদার থাকলেও তিনি ঘুমিয়ে ছিলেন। সিসি ক্যামেরা না থাকার পাশাপাশি অস্ত্রধারী কোন আনসার সদস্য ছিল না।

Check Also

অস্ট্রেলিয়ায় ওমিক্রনের কমিউনিটি ট্রান্সমিশন হচ্ছে

অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে বড় শহর সিডনিতে মহামারি করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের কমিউনিটি ট্রান্সমিশন ঘটছে। ইতিমধ্যে পাঁচ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *