৩১ ইউপিতে ভোট ছাড়াই চেয়ারম্যান

logo
করোনা আপডেটরাজধানীজাতীয়রাজনীতিসারাদেশবিশ্ব সংবাদঅর্থনীতিখেলাবিনোদনভিন্ন চোখেলাইফস্টাইলআদালতমতামতওয়েব স্টোরিস
মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৯, ২০২১
হোম
জাতীয়
৩১ ইউপিতে ভোট ছাড়াই চেয়ারম্যান
দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থীদের ছড়াছড়ি
facebook sharing buttontwitter sharing buttonmessenger sharing buttonwhatsapp sharing buttonsharethis sharing button
৩১ ইউপিতে ভোট ছাড়াই চেয়ারম্যান
ছবি: প্রতীকী
সাইদুর রহমান০৬:২৮, ১৯ অক্টোবর, ২০২১ | পাঠের সময় : ২.৯ মিনিট
ভোটের আগেই দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ৩১ জন চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়ে গেছেন। ফলে ৮৪৬টি ইউপির মধ্যে ৩১টি ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ভোট লাগবে না। নির্বাচিত হতে যাওয়া চেয়ারম্যান প্রার্থীরা সবাই আওয়ামী লীগ মনোনীত। যাচাই-বাছাই ও প্রত্যাহারের পরে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার সংখ্যা আরো বাড়বে। আগামী ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপের ভোট অনুষ্ঠিত হবে। ২ নভেম্বর সিরাজগঞ্জ-৩ আসনের ও ১০ পৌরসভার ভোট হওয়ার কথা রয়েছে। ঐ ১০ পৌরসভার মধ্যে ভোট ছাড়াই দুই জন মেয়র বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। ইসি সূত্রে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

গত ২০ জুন অনুষ্ঠিত ২০৪টি ইউপির মধ্যে ২৮ জন এবং ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত ১৬০ ইউপির মধ্যে ৪৫ জন চেয়ারম্যান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। অর্থাৎ প্রথম ধাপের ৩৬৫ ইউপির মধ্যে ৭৩ জন চেয়ারম্যান জনগণের ভোট ছাড়াই নির্বাচিত।

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচন ৪ সেপ্টেম্বর

ইসি সূত্রে জানা গেছে, দ্বিতীয় ধাপের ৮৪৬ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন ৪১ হাজার ৭৮৫ জন। তাদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৪ হাজার ৭৫ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ৯ হাজার ৫৬১ জন এবং সদস্য পদে ২৮ হাজার ১৪৯ প্রার্থী হয়েছেন। গত রবিবার মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় শেষ হয়। দ্বিতীয় ধাপে ৮৪৮টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তপশিল ঘোষণা করা হয়। তবে মনোনয়নপত্র দাখিল হয়েছে ৮৪৬টিতে। দুটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। এ ধাপের ৮৪৬টি ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন ৪ হাজার ৭৫ জন। তাদের মধ্যে ২ হাজার ৬৫৫ জনই স্বতন্ত্র প্রার্থী। স্বতন্ত্র প্রার্থীদের বড় একটি অংশ আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। মনোনয়ন বঞ্চিতরা বিদ্রোহী হিসেবে নির্বাচন করছেন। ফলে এবারও বিদ্রোহী প্রার্থীদের ছড়াছড়ি।

১৭টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল দ্বিতীয় ধাপে প্রার্থী দিয়েছে। এ নির্বাচনে ৮৩৮টিতে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার সাতটিতে এবং রাঙ্গামাটি জেলার বরকল উপজেলার একটিতে এ দলটির কোনো প্রার্থী নেই। অন্যান্য দলের মধ্যে জাতীয় পার্টি-জাপা ১০৭, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ৩৬৮, জাতীয় পার্টি-জেপির তিন, জাকের পার্টির ৪৯, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের ২৬ ও বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির পাঁচ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন। অন্য দলগুলোর দুই থেকে পাঁচ জন প্রার্থী হয়েছেন। বিএনপির কেউ এ নির্বাচনে দলীয় প্রতীক নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেননি

Check Also

আবরারের পরিবারকে ১২ বছর মাসিক ৭৫ হাজার টাকা দেবে বুয়েট!

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) আগামী ১২ বছরের জন্য নিহত বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *