যারা অন্য ধর্মাবলম্বীদের ওপর আক্রমণ করে, তারা ফিতনা সৃষ্টিকারী: তথ্যমন্ত্রী

palo-logo
By using this site, you agree to our Privacy Policy.
OK
রাজনীতি
যারা অন্য ধর্মাবলম্বীদের ওপর আক্রমণ করে, তারা ফিতনা সৃষ্টিকারী: তথ্যমন্ত্রী
নিজস্ব প্রতিবেদকঢাকা
প্রকাশ: ২০ অক্টোবর ২০২১, ২২: ২২
অ+
অ-
রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে বুধবার শান্তি মহাসমাবেশে বক্তব্য দেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ
রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে বুধবার শান্তি মহাসমাবেশে বক্তব্য দেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদছবি: সংগৃহীত
তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, উপমহাদেশে কোনো যুদ্ধবিগ্রহের মাধ্যমে ইসলাম বিস্তার লাভ করেনি। ওলি-আম্বিয়ারা মানুষকে ভালোবাসা দিয়ে, বুঝিয়ে ইসলামের সুশীতল ছায়াতলে এনেছেন। তাই যারা ইসলামের কথা বলে ওলি-আম্বিয়াদের বিরোধিতা করে, হানাহানিতে লিপ্ত হয়, অন্য ধর্মাবলম্বীদের ওপর আক্রমণ করে, তারা ফিতনা সৃষ্টিকারী। এদের রুখে দাঁড়াতে হবে।

আজ বুধবার পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে অনুষ্ঠিত জশনে জলুশ ও শান্তি মহাসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন
হাছান মাহমুদ বলেন, ‘পৃথিবীতে হানাহানি ও দলাদলি বন্ধ করে মানুষকে সুপথে এনে শান্তির ধর্ম ইসলাম প্রতিষ্ঠা করেছেন মহানবী (সা.)। ইসলামের মূল মর্মবাণী মানুষে মানুষে ভ্রাতৃত্ব, সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতি স্থাপন করা। যারা এই মর্মবাণী ধারণ করে, তারা কখনো জঙ্গি হয় না, হানাহানিতে লিপ্ত হয় না, ইসলামের নামে কারও ওপর আক্রমণ করে না। কারণ রাসুল (সা.) কখনো ধর্মের নামে কারও ওপর আক্রমণের শিক্ষা দেননি, ইসলাম কখনো সে শিক্ষা দেয় না।’ কিন্তু ইসলামের এই মর্মবাণী থেকে সরে গিয়ে আজ অনেকে ধর্মের ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে ওলি-আম্বিয়াদের বিরুদ্ধে কথা বলে, তরুণদের বিপথগামী করেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর পূর্বপুরুষেরা ইরাকের বাগদাদ থেকে ধর্মপ্রচারের জন্য এ দেশে আসেন। এ দেশ যেমন মুসলিমদের, তেমনই হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান সবার। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান সবাই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা পেয়েছি। তাই দেশের শান্তি, সম্প্রীতি, সৌহার্দ্য বজায় রাখতে আমরা ঐক্যবদ্ধ থাকব।’

Check Also

আবরারের পরিবারকে ১২ বছর মাসিক ৭৫ হাজার টাকা দেবে বুয়েট!

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) আগামী ১২ বছরের জন্য নিহত বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *