ফেসবুক লাইভে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

ফেনীতে ফেসবুক লাইভে এসে স্ত্রীকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় স্বামীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ফেনীর জেলা ও দায়রা জজ বেগম জেবুননেছা এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ওই ব্যক্তির নাম ওবায়দুল হক। তিনি ফেনী পৌরসভার উত্তর বারাহীপুর ভূঁইয়াবাড়ির বাসিন্দা। মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি তাঁর ৫০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
আদালত সূত্র জানায়, ২০২০ সালের ১৫ এপ্রিল ফেনী পৌরসভার উত্তর বারাহীপুর ভূঁইয়াবাড়িতে দাম্পত্য কলহের জের ধরে ফেসবুক লাইভে এসে স্ত্রী তাহমিনা আক্তারকে দুই হাত পিছমোড়া করে বেঁধে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করেন স্বামী ওবায়দুল হক। পরে হত্যাকারী ওবায়দুল নিজেই জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ কল করে স্ত্রীকে হত্যার ঘটনাটি পুলিশকে জানান। খবর পেয়ে ফেনী মডেল থানা-পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওবায়দুলকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দা ও ফেসবুকে প্রচার চালানো মুঠোফোন জব্দ করা হয়।

ঘটনার পরদিন নিহতের বাবা সাহাব উদ্দিন বাদী হয়ে ওবায়দুল হককে একমাত্র আসামি করে ফেনী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। ওই দিনই আসামি ওবায়দুলকে ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে তিনি হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

Check Also

আবরারের পরিবারকে ১২ বছর মাসিক ৭৫ হাজার টাকা দেবে বুয়েট!

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) আগামী ১২ বছরের জন্য নিহত বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *