গুজব ছড়ানো ভিডিওটি ‘প্রথমে ফেসবুকে দেওয়া’ ব্যক্তি গ্রেপ্তার

রাজধানীর পল্লবীর ‘সাহিনুদ্দীন’ হত্যাকাণ্ডের নৃশংস ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নোয়াখালীর ‘যতন সাহা’ হত্যাকাণ্ড বলে প্রচার করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার অভিযোগে চট্টগ্রামে এক তরুণকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
গ্রেপ্তার রিমন শীল (২০) চট্টগ্রাম নগরের ফিরিঙ্গি বাজার এলাকার ইয়াকুব নগরের বিজয় শীলের ছেলে। আজ রোববার নগরের কোতোয়ালি মোড় থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। র‍্যাবের দাবি, রিমন শীলই প্রথম ফেসবুকে এই ভিডিও আপলোড করেন।
র‍্যাব-৭ চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক (গণমাধ্যম) নুরুল আবছার প্রথম আলোকে বলেন, গত ১৬ মে বিকেলে পল্লবীর সিরামিকস ফটকের কাছে দুর্বৃত্তরা শিশুপুত্রের সামনে বাবা সাহিনুদ্দিনকে কুপিয়ে হত্যা করে। সম্প্রতি সেই ভিডিও ক্লিপ নোয়াখালীর যতন সাহার বলে ফেসবুকে আপলোড করে গুজব ছড়ানো হয়।

বিজ্ঞাপন
এর আগে র‍্যাবের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, ভারতের দুটি আইডি থেকে সাহিনুদ্দিন হত্যার ভিডিও ক্লিপটি নোয়াখালীর যতন সাহার বলে ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। পরে এ ঘটনায় রাজধানীর বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক রুমা সরকারকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব।

বিজ্ঞাপন
এখন রিমন শীলকে গ্রেপ্তারের পর র‍্যাব বলছে, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি সাহিনুদ্দীন হত্যাকাণ্ডের ভিডিও নোয়াখালীর যতন সাহা হত্যাকাণ্ড বলে অপপ্রচারে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। রিমনই সর্বপ্রথম এই ভিডিও ফেসবুকে আপলোড করার কথা স্বীকার করেন।

Check Also

অস্ট্রেলিয়ায় ওমিক্রনের কমিউনিটি ট্রান্সমিশন হচ্ছে

অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে বড় শহর সিডনিতে মহামারি করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের কমিউনিটি ট্রান্সমিশন ঘটছে। ইতিমধ্যে পাঁচ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *