রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রের চেয়ে কয়েক গুণ কার্বন নিঃসরণ হয় সিমেন্ট ও বিস্কুট কারখানায়: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে যে পরিমাণ কার্বন নিঃসরণ ঘটবে, তার চেয়ে সেখানকার সিমেন্টসহ অন্য কারখানাগুলো থেকে কার্বন নিঃসরণের মাত্রা কয়েক গুণ বেশি। অত্যন্ত আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা এই প্রকল্পে কার্বন নিঃসরণ অনেক কম। প্রকল্পটি নিয়ে অত দুশ্চিন্তার কিছু নেই।
আজ শনিবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী তাঁর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন।

স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে অনুষ্ঠেয় জলবায়ু শীর্ষ সম্মেলন অংশগ্রহণ এবং তারপর প্যারিসে আনুষ্ঠানিক সফরের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল রোববার সকালে ঢাকা ছাড়ছেন। প্রধানমন্ত্রীর এই সফর উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

বিজ্ঞাপন
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশে ১০টি কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র হওয়ার কথা ছিল। আমরা সেগুলো বাতিল করেছি। পৃথিবীর এটা দেখা উচিত। এতে আমাদের ১২ বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ নষ্ট হলো। আরও ছয়টি কেন্দ্র যেগুলো প্রক্রিয়ার মধ্যে ছিল, সেগুলোও নাকচ করে দিয়েছি। পৃথিবীকে বাঁচাতে আমরা এ রকম বড় উদ্যোগ নিয়েছি। অন্যদেরও এটি দেখা উচিত। আমরা চাই অন্যান্য দেশও আমাদের অনুসরণ করবে।’

এতগুলো কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিল হলো, রামপাল হলো না কেন, এই প্রশ্ন করা হয়েছিল আব্দুল মোমেনকে। জবাবে তিনি বলেন, ‘রামপালের বিষয়ে বলি, এটা অত্যন্ত অত্যাধুনিকভাবে তৈরি করা হয়েছে। এর যে ধোঁয়া, এটি ২০০ ফুট ওপরে যায়; পয়েন্ট জিরো টু পারসেন্ট, যেটি অত্যন্ত কম কার্বন নিঃসরণ। ভয়টা হচ্ছে যখন কয়লাটা আনবে, সেটা যদি কোনোভাবে নদীতে পড়ে যায়, তখন দূষণ হতে পারে

Check Also

অস্ট্রেলিয়ায় ওমিক্রনের কমিউনিটি ট্রান্সমিশন হচ্ছে

অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে বড় শহর সিডনিতে মহামারি করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের কমিউনিটি ট্রান্সমিশন ঘটছে। ইতিমধ্যে পাঁচ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *