সিএনজিচালিত বাসে স্টিকার লাগাতে হবে

palo-logo
By using this site, you agree to our Privacy Policy.
OK
রাজধানী
সিএনজিচালিত বাসে স্টিকার লাগাতে হবে
নিজস্ব প্রতিবেদকঢাকা
প্রকাশ: ০৯ নভেম্বর ২০২১, ২১: ৩১
অ+
অ-
জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে বাস ভাড়া বাড়ানো হলেও সিএনজিচালিত বাসের ক্ষেত্রে তা প্রযোজ্য নয়, কিন্তু সব বাসেই বাড়তি ভাড়া আদায় করা হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে
জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে বাস ভাড়া বাড়ানো হলেও সিএনজিচালিত বাসের ক্ষেত্রে তা প্রযোজ্য নয়, কিন্তু সব বাসেই বাড়তি ভাড়া আদায় করা হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছেফাইল ছবি: প্রথম আলো
সিএনজিচালিত বাসে স্টিকার লাগানোর নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। এ বিষয়ে ইতিমধ্যে পরিবহন মালিক সমিতিকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। বাসে স্টিকার লাগানো হয়েছে কি না, তা নিশ্চিত করবে বিআরটিএ। এ ছাড়া বৃহস্পতিবার থেকে বাস-মিনিবাসে বাড়তি ভাড়া আদায়কারীদের বিরুদ্ধে মালিক-শ্রমিক সংগঠনের প্রতিনিধিদের নিয়ে যৌথ অভিযান শুরু করবে বিআরটিএ।
গত রোববার ঢাকাসহ সারা দেশে শুধু ডিজেলচালিত বাস-মিনিবাসের ভাড়া বাড়িয়েছে সরকার। সিএনজিচালিত বাসের জন্য বর্ধিত ভাড়া প্রযোজ্য নয় বলে জানিয়েছে সরকার। কিন্তু এই গ্যাসচালিত বাসের সংখ্যা কত, কোন পথে সেগুলো চলে বা এগুলো চিহ্নিত করার কোনো পথ বাতলে দেওয়া হয়নি। বিআরটিএ সিএনজিচালিত বাসের প্রকৃত সংখ্যা বা এগুলো কোন কোন পথে চলাচল করে তা স্পষ্ট করেনি। ফলে রাজধানী ঢাকায় এবং দূরপাল্লার পথে গ্যাসচালিত বাসেও বর্ধিত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে যাত্রীদের বোঝার সুবিধার্থে সিএনজিচালিত বাস চিহ্নিত করতে স্টিকার লাগানোর জন্য পরিবহন মালিক সমিতিকে সোমবার চিঠি দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন
বিভিন্ন স্থানে সরকারের নির্ধারিত ভাড়া না মেনে বাড়তি ভাড়া আদায় করা হচ্ছে—এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে বিআরটিএ প্রধান কার্যালয়ে বৈঠক করেন সংস্থাটির চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার। সেখানে ঢাকা মহানগর পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশ, ঢাকা জেলা প্রশাসন ও পরিবহন মালিক-শ্রমিক প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে বৃহস্পতিবার থেকে বাড়তি ভাড়া আদায় বন্ধে মালিক-শ্রমিক প্রতিনিধিদের নিয়ে যৌথ অভিযান শুরুর সিদ্ধান্ত হয়। এ ছাড়া প্রয়োজনে মহানগর পুলিশ এবং ঢাকা জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেটদের দিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান জোরদার করার সিদ্ধান্ত হয়।

এসব বিষয়ে বিআরটিএর চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার প্রথম আলোকে বলেন, বিআরটিএর নিয়মিত ভ্রাম্যমাণ আদালত প্রতিদিনই পরিচালিত হবে। পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের নিয়ে যৌথ অভিযান শুরু হবে বৃহস্পতিবার। তিনি জানান, গতকালের বৈঠকে তাঁরা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন যে এক টাকাও বাড়তি ভাড়া আদায় করা যাবে না। তিনি আরও বলেন, বাড়তি ভাড়া আদায়ের কিছু অভিযোগ তাঁরা পাচ্ছিলেন। এ ছাড়া সিএনজিচালিত বাস চিহ্নিত করাও যাত্রীদের জন্য কষ্টকর। এ কারণে স্টিকার লাগানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কেউ স্টিকার না লাগালে ভ্রাম্যমাণ আদালত ও পুলিশ ব্যবস্থা নেবে। প্রয়োজনে বিআরটিএ দপ্তরে থাকা সিএনজিচালিত যানের তথ্য ধরে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন
বিআরটিএর সঙ্গে বৈঠক শেষে বাসে বাড়তি ভাড়া আদায় না করার জন্য পরিবহন মালিকদের নির্দেশ দিয়েছে এই খাতের মালিকদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি ও ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি। গতকাল মঙ্গলবার এ বিষয়ে রাজধানীর আন্তজেলা বাস টার্মিনাল, ঢাকার ভেতরের বিভিন্ন বাসস্ট্যান্ড ও কোম্পানির দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের চিঠি দিয়ে বাড়তি ভাড়া আদায় করলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়ে সতর্ক করে দেওয়া হয়।

Check Also

অস্ট্রেলিয়ায় ওমিক্রনের কমিউনিটি ট্রান্সমিশন হচ্ছে

অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে বড় শহর সিডনিতে মহামারি করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের কমিউনিটি ট্রান্সমিশন ঘটছে। ইতিমধ্যে পাঁচ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *