যে কারণে পরীক্ষা দিতে দিলেন না কেন্দ্র সচিব

এবার নোয়াখালীতে দেরি করে পরীক্ষা কেন্দ্রে আসায় এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষা দিতে দেননি কেন্দ্র সচিব। বেগমগঞ্জ সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে গত মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে। রাস্তায় যানজটের কারণে পরীক্ষা হলে নির্দিষ্ট সময়ে উপস্থিত হতে পারেননি গনিপুর গার্লস হাইস্কুলের বিজ্ঞান বিভাগের এসএসসি পরীক্ষার্থী সামিয়া সুলতানা শান্তা। এ কারণে তাকে পরীক্ষায় বসতে দেননি কেন্দ্র সচিব বেগমগঞ্জ সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল মান্নান।

ওই পরীক্ষার্থীর মা রাবেয়া সুলতানা অভিযোগ করে বলেন, ‘গত ৫ দিন ধরে আমার মেয়ে অসুস্থ। এই শরীরেই মঙ্গলবার সকালে তাকে নিয়ে রসায়ন পরীক্ষা দেওয়ার জন্য বাসা থেকে বের হই। চৌমুহনীতে দীর্ঘ যানজটের কারণে পরীক্ষার কেন্দ্রে পৌঁছাতে ১৫ মিনিট দেরি হয়। সেখানে যাওয়ার পর কেন্দ্র সচিব আবদুল মান্নান তাকে পরীক্ষা দিতে দেবেন না বলে জানান।’

তিনি বলেন, ‘পরে গনিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নিজাম উদ্দিন ও ওই বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি গোলাম ফারুক ভূইয়া কেন্দ্র সচিবকে পরীক্ষার অনুমতি দিতে অনুরোধ করেন। কিন্তু তিনি কারো কথাই রাখেননি।’এদিকে গনিপুর গার্লস হাইস্কুলের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি গোলাম ফারুক ভূইয়া বলেন, ‘যানজটের কারণে ওই শিক্ষার্থী কেন্দ্রে পৌছাতে ১৫-২০ মিনিট দেরি করেছে। কিন্তু তার তো পরীক্ষা দেওয়ার অধিকার আছে। প্রধান শিক্ষক আমার অনুরোধ রাখেননি।’

তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত, বিচার এবং ওই শিক্ষার্থীকে বিশেষ ব্যবস্থায় পরীক্ষা নেওয়ার জন্য কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও নোয়াখালী জেলা প্রশাসকের কাছে দাবি জানিয়েছেন। এ বিষয়ে কেন্দ্র সচিব আবদুল মান্নান বলেন, ‘ওই পরীক্ষার্থী ৪০ মিনিট পর কেন্দ্রে প্রবেশ করেছে। তাই তাকে পরীক্ষা দিতে দেওয়া হয়নি।’

Check Also

আবরারের পরিবারকে ১২ বছর মাসিক ৭৫ হাজার টাকা দেবে বুয়েট!

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) আগামী ১২ বছরের জন্য নিহত বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *